রাশিয়া থেকে আটকে পড়া স্টুডেন্টদের দেশে ফিরিয়ে আনছেন দেব

প্রকাশিত: ৭:৩৫ অপরাহ্ণ, জুন ১৮, ২০২০

সূদুর রাশিয়া থেকে তৃণমূল সাংসদ তথা অভিনেতা দেবকে আরজি জানিয়েছিলেন এক স্টুডেন্ট- “দয়া করে আমাদের বাড়ি ফেরানোর ব্যবস্থা করে দিন”। সেই বার্তা দেবের নজরে আসতেই তড়িঘড়ি ব্যবস্থা শুরু করে দেন তিনি। নেপাল থেকে ১০০০ শ্রমিককে ফেরানোর পর এবার ‘বন্দে ভারত মিশন’-এর অধীনে মোট ৭৭ জন ডাক্তারি স্টুডেন্টকে ভারতে ফেরাচ্ছেন সাংসদ। যাঁরা এই মুহূর্তে আটকে রয়েছেন রাশিয়াতে। এদের মধ্যে সিংহভাগ স্টুডেন্টের বাড়িই বাংলায়।

একেবারে নিঃশব্দেই কাজ করে চলেছেন সাংসদ-অভিনেতা। সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনওরকম ছবি নেই। প্রচারের আলো থেকে দূরে মানুষের জন্য কাজ করে চলেছেন নিঃশর্তে। অখিলেন্দু করক নামে এক ডাক্তারি স্টুডেন্ট টুইটারে ক্রমাগত তাঁদের সমস্যার কথা জানাতে থাকেন। সেখানে নরেন্দ্র মোদী, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, এমনকী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক অমিত শাহকে ট্যাগ করার পাশাপাশি সাংসদ দেবের নামও উল্লেখ করেন তিনি। কারণ, অখিলেন্দু জানতেন, নেপালের পরিযায়ী শ্রমিকদের দেবের দেশে ফেরানোর কথা। এর আগে দুবাই থেকেও দেবকে ফোনে যোগাযোগ করা হয়েছিল।

খবর পেয়েই ময়দানে নামেন সাংসদ-অভিনেতা দেব। আগের মতোই মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে পরামর্শ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয় এবং পররাস্ট্র সচিবের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। এরপর সবুজ সংকেত মিললেই রাশিয়া থেকে বাংলার স্টুডেন্টদের ফেরানোর প্রক্রিয়া শুরু করে দেন দেব। আগামী ২৭ জুন ৭৭ জন স্টুডেন্ট ভারতে ফিরছে সাংসদ দেবের উদ্যোগে।

লকডাউনের জেরে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল আপাতত বন্ধ। রাশিয়া থেকে তাই স্টুডেন্ট দেশে ফিরবেন বন্দে ভারত মিশনে। দিল্লি কিংবা মুম্বই এসে, সেখান থেকে কানেকটেড ফ্লাইট ধরে কলকাতায় ফিরবেন তাঁরা। এরপর নিজ নিজ জেলায়। নিয়ম মেনে কোয়ারেন্টাইনেও থাকবেন তাঁরা। দেব-ই সহায় বটে!

এই বিষয়ে স্টুডেন্টদের তরফ থেকে অখিলেন্দু ফের দেবকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন টুইটে। পালটা তার উত্তর দিতেও ভোলেননি তিনি। একেবারে আপনজনের মতোই বলেছেন, “ধন্যবাদ দেওয়ার মতো কিছু নেই। আমরা সকলেই এখন একই পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছি। আশা করি, খুব শিগগিরিই তোমরা ভালভাবে বাড়ি ফিরে আসবে। আর হ্যাঁ, ফিরে সবার আগে নিজেদের কোয়ারেন্টাইন করে রাখতে ভুলো না যেন! তোমরাওই দেশের যুবপ্রজন্ম। আগামীর দূত। যখনই দরকার পড়বে, মানুষের সাহায্যে হাত বাড়িয়ে দিও। শুভেচ্ছা রইল।”