দুই দিনব্যাপী জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস পালিত হবে 1

দুই দিনব্যাপী জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস পালিত হবে

‘চলচ্চিত্র বাঁচলে সংস্কৃতি বাঁচবে’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে আগামী ৩ এপ্রিল উদযাপন করা হবে জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস। এ উপলক্ষ্যে আজ সোমবার বিএফডিসির জহির রায়হান কালার ল্যাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিএফডিসির ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক লক্ষন চন্দ্র দেবনাথ, সৈয়দ হাসান ইমাম, চিত্রনায়ক আলমগীর, চিত্রনায়িকা অঞ্জনা, পরিচালক মুশফিকুর রহমান গুলজার, বদিউল আলম খোকন, চিত্রনায়ক জায়েদ খান, রাউন্ড দ্য ক্লকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সালমান মাহমুদসহ অনেকে।

জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক সৈয়দ হাসান ইমাম বলেন, ‘এবারের চলচ্চিত্র দিবস জাঁকজমকভাবে দুই দিনব্যাপী পালন করতে চাচ্ছি। সকাল থেকেই সিনিয়র শিল্পীসহ চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা এফডিসিতে উপস্থিত থাকবেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর শোভাযাত্রায় অংশ নিবেন চলচ্চিত্রের কলাকুশলীরা। এরপর দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটে নির্মিত সিনেমা প্রদর্শন করা হবে।’

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান বলেন, ‘চলচ্চিত্রের সকল শিল্পীদেরকে আমরা এরই মধ্যে চিঠি দিয়েছি। এবারের চলচ্চিত্র দিবসে শিল্পীরা উপস্থিত থেকে দিনটি উদযাপন করবেন বলে আশা করছি।’

তথ্য মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এবং চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনের (বিএফডিসি) তত্ত্বাবধানে বিএফডিসি চত্বরে এদিন সকাল ৯টা ৩০ মিনিটে জাতীয় পতাকা ও জাতীয় সংগীত পরিবেশনার মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করা হবে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সাংসদ হাসানুল হক ইনু, আকবর হোসেন পাঠান ফারুক, তথ্য সচিব আবদুল মালেক। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করবেন সৈয়দ হাসান ইমাম।

বিভিন্ন আয়োজনের মাধ্যমে উদযাপিত হবে দিবসটি। চলচ্চিত্রের বিভিন্ন দিক নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে আলোচনা ও সেমিনার। ‘বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের বর্তমান অবস্থা এবং উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক সেমিনার বিকাল ৩টায় বিএফডিসির ৮ নং শুটিং ফ্লোরে অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ ও সংসদ সদস্য সুবর্ণা মুস্তাফা, তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুল মালেক।

এ ছাড়াও থাকছে শোভাযাত্রা, স্মরণিকা প্রকাশ, লাইভ টক শো, লাল গালিচা সংবর্ধনা, মেলা, স্থিরচিত্র প্রদর্শনী, চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, পুতুল নাচ, নাগরদোলা, বায়োস্কোপ ও সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। এই ইভেন্টের দায়িত্বে রয়েছে রাউন্ড দ্য ক্লক।

 

সুত্র : রাইজিংবিডি

Add your comment

Your email address will not be published.