যুক্তরাষ্ট্রের মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার পেয়েছেন তাজীন শাদীদ

প্রকাশিত: ৬:৫৭ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৩, ২০১৮

কার উদ্ভাবনমূলক কাজের স্বীকৃতি হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের ‘মাইক্রোসফট অ্যালামনাই নেটওয়ার্ক ইন্সপায়ার্ড লিডার অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন বাংলাদেশের তাজীন শাদীদ। তিনি স্পৃহা ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা।

এরিজনাভিত্তিক রেড ফেদার ডেভেলপমেন্ট গ্রুপের সঙ্গে যুক্ত হয়ে তিনি এ পুরস্কার লাভ করেন। তাজীন ২০ বছরেরও বেশি সময় মাইক্রোসফটে কর্মরত ছিলেন।

২০০৫ সালে ইউনিভার্সিটি অব টেক্সাস নর্থ থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভের পর তাজীন মাইক্রোসফটে যোগদান করেন। সাফল্যের সঙ্গে দীর্ঘ ১০ বছর কাজ করার পর ২০১৫ সালে সেখান থেকে অব্যাহতি নেন।

এরপর বাংলাদেশের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পরিকল্পিত বাসস্থান ও তার বাস্তবায়ন নিয়ে কাজ করার লক্ষ্যে নিজ উদ্যোগে গড়ে তোলেন বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা স্পৃহা ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ।

২০১৬ সাল থেকে প্রতি বছর দু’জন করে ব্যক্তিকে ‘মাইক্রোসফট অ্যালামনাই নেটওয়ার্ক অ্যাওয়ার্ড’ দেয়া হয়। যারা মঙ্গলজনক কাজে নিষ্ঠার সঙ্গে নিজেদের যুক্ত করেন তাদের এই পুরস্কার দেয়া হয়।

অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্তদের এক বছরের কমিউনিটি সাপোর্টের জন্য ১০ হাজার মার্কিন ডলার অনুদান দেয়া হয়। তাজীন শাদীদ স্পৃহা ফাউন্ডেশন গড়ার কাজ শুরু করেন মাইক্রোসফটে কাজ করার সময়কালেই। বাংলাদেশের মানুষের জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন নিয়ে তখন থেকেই তিনি ভাবতেন। তাজীন এখন পুরোপুরি স্পৃহা ফাউন্ডেশনে সময় দিচ্ছেন। সংস্থাটির বিভিন্ন বিষয় যেমন- আত্মসামাজিক উন্নয়ন, স্পৃহা স্টুডিও এবং প্রশিক্ষণসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কাজ করছে।

স্পৃহা ফাউন্ডেশন ১,২৫,০০০ হাজার মানুষকে সুবিধা দিয়ে আসছে। তাজীন শাদীদ জানান ‘চিন্তাটা বড়’- যেটা তিনি মাইক্রোসফট থেকে শিখেছেন। তিনি বলেন, স্পৃহা সমাজ উন্নয়নের বিভিন্ন উদ্যোগ অব্যাহত রেখেছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে- ‘স্নেহ ডায়াগনস্টিক সেন্টার’। যেখানে মানুষ শহুরে বাসস্থানে থেকেও সাশ্রয়ী মূল্যে স্বাস্থ্যসেবা পেয়ে থাকে।