বরিশালে কমিউনিটি ক্লিনিক গ্রামীণ জনপথের স্বাস্থ্যসেবার মান বদলে দিয়েছে 1

বরিশালে কমিউনিটি ক্লিনিক গ্রামীণ জনপথের স্বাস্থ্যসেবার মান বদলে দিয়েছে

॥ শুভব্রত দত্ত ॥
বরিশাল, ১৪ নভেম্বর, ২০১৮ (বাসস) : জেলার কমিউনিটি ক্লিনিক গ্রামীণ জনপথের হত-দরিদ্র ও অসহায় সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্যসেবার মান বদলে দিয়েছে। প্রত্যন্ত গ্রামীণ জনপথে স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিয়ে অসহায় সাধারণ মানুষের জীবনে এনে দিয়েছে স্বস্তি এমটাই বলেন মোসামৎ শরিফা বেগম।
জেলার উজিরপুর উপজেলার শিকারপুর (সিসি) কমিউনিটি ক্লিনিক থেকে সেবা গ্রহণকারী মোসামৎ শরিফা বেগম আরো বলেন, এখান থেকে যে কোন ধরনের সাধারন রোগের চিকিৎসা আমরা পাচ্ছি। কিছুদিন পূর্বেও ছোটখাটো রোগের চিকিৎসা নিতে শহরে যেতে হতো। যা এখন আর লাগে না। বদলে দিয়েছে স্বাস্থসেবার মান।
সেবা গ্রহণকারী অন্তঃসত্ত্বা নুপুর আক্তার বলেন, এ ক্লিনিকটি থাকায় নিয়মিত স্বাস্থ্য পর্যবেক্ষণ করার সুযোগ পাচ্ছি আমরা। একই সাথে কমিউনিটি হেলথ কেয়ারের চিকিৎসকরা বেশ কয়েক ধরনের ওষুধ বিনামূল্যে দিয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে ৩০টি আয়রন ট্যাবলেট, ৩০টি ভিটামিন বি-কমপ্লেক্স ট্যাবলেট ও ৩০টি ক্যালসিয়াম ট্যাবলেট।
নুপুর আরো বলেন, আমার স্বামী দিনমজুর। সংসারে অর্থ কষ্ট রয়েছে। সন্তান প্রসব নিয়ে চিন্তায় ছিলাম। বিনামূল্যে ওষুধ ও স্বাস্থ্য পর্যবেক্ষণ করার সুযোগ পেয়ে বর্তমানে অনেকটা চিন্তা মুক্ত হয়েছি।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, মাতৃত্বকালীন ৫টি বিপদের আশঙ্কা, গর্ভবর্তী মায়ের স্বাস্থ্যসেবা, প্রসূতি মায়ের ঝুকিপূর্ণ অবস্থা এবং মা ও শিশুর শারীরিক যতœসহ স্বাস্থ্য বিষয়ক বিভিন্ন সুবিধা পাচ্ছে গ্রামীণ জনপথের নারীরা।
সংশ্লিষ্ট সূত্র আরো জানায়, চলতি বছর জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর জেলার ১০টি উপজেলায় ২শ’ ৮১টি কমিউনিটি হেলথ কেয়ার থেকে সর্বমোট প্রায় ৩ লাখ ৬৩ হাজার পুরুষ, ৮ লাখ ৫ হাজার মহিলা ও ৯০ হাজার ৩শত শিশুকে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করা হয়েছে। বিনামূল্যে ৩০ প্রকার ওষুধ বিতরণের পাশাপাশি স্বাস্থ্য, পরিবার-পরিকল্পনা ও পুষ্টি বিষয়ক পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। বর্তমানে ক্লিনিকগুলোতে স্বাস্থ্য সেবা গ্রহণকারীর সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে।
এবিষয়ে জেলা সিভিল সার্জন ডা. মো. মনোয়ার হোসেন বলেন, কমিউনিটি হেলথ কেয়ারগুলোতে স্বাস্থ্যসেবা নিতে নারী ও শিশু রোগীর সংখ্যা বেশি। এসব রোগীরা মুলত গর্ভবর্তী মায়ের স্বাস্থ্যসেবা, শিশু স্বাস্থ্য ও সাধারন স্বাস্থ্যসেবা নিতে আসেন। তবে বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা ও ওষুধ পেয়ে সাধারণ মানুষ খুব খুশি।
এব্যাপারে বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডা. মো. মাহবুবুর রহমান বলেন, গ্রামীণ জনপথের দরিদ্র ও সাধারন মানুষের দোরগোড়ায় মানসসম্মত স্বাস্থ্যসেবা পৌছে দেয়ার লক্ষ্যে কমিউনিটি হেলথ কেয়ারগুলো কাজ করছে।

Ref- বাসস/সংবাদদাতা/রশিদ/১৩১৫/নূসী

Add your comment

Your email address will not be published.