ফাইভজি আনবে টেলিটক 1

ফাইভজি আনবে টেলিটক

থ্রিজির মতো ফাইভজিও রাষ্ট্রায়ত্ত কোম্পানি টেলিটকের মাধ্যমে শুরুর পরিকল্পনা করছে সরকার। এর অংশ হিসেবে টেলিটক প্রকল্প তৈরির কাজে হাত দিয়েছে। টেলিটকের পর্ষদ সভায় গত বুধবার সরকারের নির্দেশনার পর এ নিয়ে আলোচনা হয়।

টেলিটকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাহাবুদ্দীন জানান, টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী এরই মধ্যে তাদেরকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা নিয়েছেন। সে অনুসারে তারা কাজও শুরু করে দিয়েছেন।সরকারের পরিকল্পনা অনুসারে ২০২১ সালে বিজয় দিবসে দেশে ফাইভজি সেবা চালু হবে।বেসরকারি অপারেটরগুলোও থেমে নেই। তারাও পরবর্তী প্রজেন্মের সেবা দেওয়ার জন্য প্রস্তুতি নেওয়া শুরু করেছে।

গত বছর চীনা প্রযুক্তি নির্মাতা হুয়াওয়ে মোবাইল ফোন অপারেটর রবির সঙ্গে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো ফাইভজির সফল পরীক্ষা চালায়।“মন্ত্রীর নির্দেশনা অনুসারে বর্তমান সরকারের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুসারে প্রতিটি গ্রামকেই শহরের সেবা দিতে সামনের বাজটের জন্য পরিকল্পনা করতে শুরু করা হয়েছে”- বলে জানিয়েছে টেলিটক এমডি।

এর আগে ফেব্রুয়ারিতে টেলিটকের এক অনুষ্ঠানে টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারও সবার আগে টেলিটকের মাধ্যমে দেশে ফাইভজি চালু করার ঘোষণা দেন।এর আগে ২০১২ সালের আগস্টে টেলিটকের মাধ্যমে দেশে থ্রিজির যাত্রা হয়। এর এক বছরেরও বেশি সময় পর ২০১৩ সালের সেপ্টেম্বরে অন্য চার বেসরকারি অপারেটর থ্রিজির লাইসেন্স পায়। এবং সেবা চালু করতে করতে তাদের অক্টোবর-নভেম্বর হয়ে যায়।ওই এক বছরের মধ্যে টেলিটক অনেকটা পথ এগিয়ে যায় বলেও স্বীকার করেন সাহাবুদ্দিন।

তিনি বলেন, যদিও ফাইভজি আসতে এখনও আরও কয়েক বছর বাকি। কিন্তু থ্রিজির মতো করে ফাইভজিতেও তারা একচেটিয়াত্বের সুযোগটা কিছুদিন পেলে তারা বড়দের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে পারবেন। টেলিটক এমডি জানান, এর মধ্যে তারা এক হাজার ১০০ ফোরজি সাইটের কাজ শেষ করেছেন। চলতি বছরের শেষের দিকে আরও দুই হাজার ফোরজি সাইট তাদের নেটওয়ার্কে যুক্ত হবে।

তিনি বলেন, বিনিয়োগ কম হওয়ায় তারা হয়তো দেশের সব জায়গায় ফোরজি সেবা দিতে পারছেন না। কিন্তু যেখানে তাদের নেটওয়ার্ক আছে সেখানে তাদের সেবাই সবচেয়ে ভালো বলে দাবি করেন সাহাবুদ্দিন। গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে চারটি অপারেটরকে ফোরজি’র লাইসেন্স দেওয়া হলেও তিনটি ওই মাসেই সেবা চালু করে। কিন্তু টেলিটকের সেবা চালু করতে করতে ডিসেম্বর হয়ে যায়। এতে রাষ্ট্রায়ত্ত অপারেটরটি পিছিয়ে পড়ে।

 

সুত্র : একুশে টেলিভিশন

Add your comment

Your email address will not be published.