ডিসেম্বরে মুক্তি পাচ্ছে বাবুর ‘মাস্তুল’ 1

ডিসেম্বরে মুক্তি পাচ্ছে বাবুর ‘মাস্তুল’

জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী ফজলুর রহমার বাবু। তার অভিনীত চলচ্চিত্র ‘মাস্তুল’ এখন মুক্তির প্রতিক্ষায়। চলতি বছরের ডিসেম্বরে মুক্তি পাবে সিনেমাটি।

মোহাম্মদ নূরুজ্জামানের গল্প ও চিত্রনাট্যে নির্মিত চলচ্চিত্রটি সিনেমাকারের প্রযোজনা। এর কো-ডিরেক্টর হিসেবে আছেন যুবরাজ শামীম, চিত্রগ্রহণে মোহাম্মদ আরিফুজ্জামান।

গত ৭ মার্চ নারায়ণগঞ্জের বন্দর এলাকায় এর শুটিং শুরু হয়। এর সিংহভাগ শুটিং হয়েছে চলন্তজাহাজে, শীতলক্ষ্যা থেকে মেঘনার পথে। ২০ মার্চ সিনেমার দ্বিতীয় লটের শুটিং শেষ হয়েছে। শেষ লটের শুটিং আগামী মাসের শুরুর দিকে হবে।

জাহাজীদের গল্প নিয়ে নির্মিতব্য এ চলচ্চিত্রে বুড়ো মকবুলের চরিত্রে দেখা যাবে ফজলুর রহমান বাবুকে।

সিনেমার গল্প সম্বন্ধে নির্মাতা জানান, একটি তেলবাহী জাহাজে রান্নার কাজ করে বুড়ো মকবুল। জাহাজের সবার মঙ্গল কামনা করে সে। কিন্তু খালাসিরা তাকে মনে করে মালিকের গুপ্তচর, তাই অবজ্ঞা ছাড়া প্রতিদান সে আর কিছুই পায় না। এক বন্দরে জাহাজ ভীড়লে তার সঙ্গে পরিচয় হয় আশ্রয়হীন শিশু নূরার। দুজনের মধ্যে গড়ে ওঠে সখ্যতা।

মকবুল নূরাকে তার সহকারী হিসেবে জাহাজে তোলে। কিন্তু নূরাকে কেন্দ্র করে অন্য খালাসিদের সঙ্গে তৈরি হতে থাকে জটিলতা। এক পর্যায়ে মকবুল বাধ্য হয় নূরাকে অনিশ্চিত এক বন্দরে নামিয়ে দিতে, সঙ্গে দিয়ে দেয় তার জীবনের সমস্ত সঞ্চয়। আর এভাবেই এগিয়ে যায় সিনেমাটি।

নির্মাতা মোহাম্মদ নূরুজ্জামান আরও বলেন, ‘আমাদের যা আছে তাই দিয়েই আমরা সিনেমা নির্মাণ করবো। এই চিন্তা মাথায় রেখেই ২০১০ সালে সিনেমাকার নাম দিয়ে একটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলি। নিজের গড়ে তোলা এই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকেই দুটি স্বল্পদৈর্ঘ্য, একটি প্রামাণ্যচিত্র এবং ইতোমধ্যে ‘আম কাঁঠালের ছুটি’ নামে প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করি। এবার শেষ করলাম ‘মাস্তুল’। এটি আমাদের স্বপ্নের সিনেমা। এটি সেন্সরে জমা দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি।’

ফজলুর রহমান বাবু ছাড়াও এতে অভিনয় করেন দীপক সুমন, আমিনুর রহমান মুকুল, জুলফিকার চঞ্চল, শিকদার মুকিত, শিশুশিল্পী আরিফ।

সুত্র : একুশে টেলিভিশন

Add your comment

Your email address will not be published.