উবার দুই বছর বাংলাদেশে

‘উবারের সবচেয়ে বড় মটো মার্কেট বাংলাদেশ’ ঘোষণা দিয়ে বাংলাদেশে রাইড শেয়ারিং সেবার দুই বছর পূর্তি উদ্‌যাপন করেছে উবার। এ উপলক্ষে গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেখানে বলা হয়, তাদের বড় মটো মার্কেটের তালিকায় বাংলাদেশের পর আছে ভারত ও মিসর।

অনুষ্ঠানে উবারের ভারত ও দক্ষিণ এশিয়ার প্রতিনিধি, বাংলাদেশের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর ও জনসংযোগ সহযোগী বেঞ্চমার্ক পিআরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। উবারের ভারত ও দক্ষিণ এশিয়ার সভাপতি প্রদীপ পরমেশ্বরণ বলেন, তাঁরা দুই বছরে চালকদের জন্য কাজের সুযোগ সৃষ্টি এবং যাত্রীদের যাতায়াতের সময় কমিয়ে শহরের যাতায়াতব্যবস্থাতেও ইতিবাচক পরিবর্তন এনেছেন।

তবে উবারের সেবা নিয়ে গ্রাহকদের মিশ্র প্রতিক্রিয়া আছে। গত দুই দিনেই উবার ব্যবহারকারীদের ফেসবুক গ্রুপে (উবার ইউজারস অব বাংলাদেশ) প্রায় ৩০টি অভিযোগ জানিয়ে পোস্ট করেছেন ব্যবহারকারীরা।

এসব অভিযোগের বিষয়ে উবারের বাংলাদেশি প্রধান কাজী জুলকারনাইনের কাছে জানতে চাইলে তিনি প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমরা এখনো পুরোপুরি পারফেক্ট নই। গ্রাহকদের সন্তুষ্টিই আমাদের মূল লক্ষ্য। সে জন্য এই সমস্যাগুলোর ওপর আমরা কাজ করে যাচ্ছি।’

ব্যবহারকারী ও কর্মীদের বর্ষপূর্তির শুভেচ্ছা জানিয়ে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান বলেন, ‘যাত্রা শুরুর সময় এর প্রথম যাত্রী ছিলাম। দুই বছরের ব্যবধানে এখন লাখ লাখ মানুষ এর সেবা নিচ্ছে।’

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, গত দুই বছরে উবারের চালকসংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক লাখের বেশি। বিগত সময়ে গড়ে প্রতি সপ্তাহে প্রায় আড়াই হাজার নতুন চালক উবারে সাইন আপ করেছেন।

এতে বলা হয়, দুই বছরে ঢাকা শহরের ২২ শতাংশ মানুষ অন্তত একবার উবার অ্যাপ ব্যবহার করেছে। প্রতি মিনিটে গড়ে ১৫৫ বার উবার অ্যাপে প্রবেশ করা হয়েছে। সবচেয়ে বেশি যাওয়া (রাইড) হয়েছে বিমানবন্দর, গুলশান-১ ও বসুন্ধরা সিটিতে। আর যাত্রার শুরু থেকে এখনো পর্যন্ত প্রায় ১৬ কোটি কিলোমিটার পথ অতিক্রম করেছে উবার। এই দূরত্বে কোনো ব্যক্তি ২০৬ বার চাঁদে ঘুরে আসতে পারেন।

বাংলাদেশে অ্যাপভিত্তিক রাইড শেয়ারিং সেবা হিসেবে উবার যাত্রা শুরু করে ২০১৬ সালে। ২০১০ সালে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠানটি প্রথম চালু হয়।

Ref- www.Prothomalo.com

Add your comment

Your email address will not be published.