ইউএই’র সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় সম্মান পেলেন মোদী 1

ইউএই’র সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় সম্মান পেলেন মোদী

সংযুক্ত আরব আমিরাতের আমিরশাহি (ইউএই)-র সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় সম্মান জায়েদ মেডেল পেলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দু’দেশের সম্পর্কের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে। আবু ধাবির যুবরাজ মহম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়াঁ বৃহস্পতিবার তার টুইটে এই খবর দিয়েছেন।

এর আগে আমিরশাহির জায়েদ মেডেল পেয়েছিলেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ, প্রাক্তন ফরাসি প্রেসিডেন্ট নিকোলাস সারকোজি, জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেল, ব্রিটেনের দ্বিতীয় রানি এলিজাবেথ ও চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং।

এ দিন তার টুইটে আবু ধাবির যুবরাজ মহম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়াঁ লিখেছেন, ভারতের সঙ্গে আমাদের সম্পর্কের দীর্ঘ ইতিহাস রয়েছে। আর সেই সম্পর্ক খুবই বন্ধুত্বপূর্ণ। সেই সম্পর্কটাকেই আমার প্রিয় বন্ধু প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আরও শক্তিশালী করে তুলেছেন। তাকে একটি অন্য মাত্রা দিয়েছেন। তারই স্বীকৃতি হিসেবে আমিরশাহির প্রেসিডেন্ট ওঁকে এ বার জায়েদ মেডেল দিয়েছেন।

আবু ধাবির যুবরাজের সেই টুইটের জবাব টুইটেই দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। ‘চৌকিদার নরেন্দ্র মোদী’ তাঁর টুইটে লিখেছেন, ‘‘প্রিয় মহম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়াঁ, আমি আপনাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। গভীর কৃতজ্ঞতার সঙ্গে আমি এই সম্মান গ্রহণ করছি। মহম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়াঁ, আপনার বহুদর্শী নেতৃত্ব দু’দেশের সম্পর্ককে একটি অন্য উচ্চতায় পৌঁছে দিয়েছে। এই সম্পর্ক দু’টি দেশের মানুষই শুধু নয়, বিশ্ববাসীর জন্যই শান্তি ও সমৃদ্ধির বার্তা বহন করেছে।’’

প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর মোদী প্রথম আমিরশাহিতে যান ২০১৫ সালে। তার পর ২০১৬ এবং ২০১৭ সালে ভারতে এসেছিলেন আমিরশহির যুবরাজ। ২০১৭-র প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে প্রধান অতিথি ছিলেন আমিরশাহির যুবরাজই। গত বছর ফের আবু ধাবিতে যান প্রধানমন্ত্রী মোদী।

ভারত যে পরিমাণ অপরিশোধিত তেল আমদানি করে, তার ৮ শতাংশই আসে আমিরশাহি থেকে। ২০১৭ সালেই ভারত ও আমিরশাহির দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের পরিমাণ ছিল ৫ হাজার কোটি ডলার।

এ দিন মোদীর পুরস্কার প্রাপ্তির খবরে অভিনন্দন জানিয়েছেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ, কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ ও উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ-সহ বহু মন্ত্রী, নেতা।

 

সূত্র : আনন্দবাজার

Add your comment

Your email address will not be published.