আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে মাশরাফির নির্বাচন

মাশরাফির নির্বাচনের খবর গুরুত্বের সঙ্গে প্রকাশ করেছেন বিদেশি সংবাদমাধ্যম। কেন তিনি রাজনীতিতে এসেছেন, এটিই মূলত গুরুত্ব পেয়েছে খবরে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এবার যে কটি মুখ ভীষণ আলোচিত, মাশরাফি বিন মুর্তজা তাঁদের একজন। খেলোয়াড়ি জীবন থেকে অবসর নেওয়ার আগেই একজন অধিনায়কের রাজনীতি করার ঘটনাই বিরল। নড়াইল-২ আসন থেকে মাশরাফির মনোনয়ন পাওয়ার খবর স্বাভাবিকভাবেই গুরুত্ব পেয়েছে বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যম। বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়কের খবর গুরুত্ব পেয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমেও।

গত পরশু ফেসবুকে নিজের পেজে মাশরাফি ব্যাখ্যা দিয়েছেন, কেন তিনি রাজনীতিতে এসেছেন, কেনই বা নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বিদেশি সংবাদমাধ্যমে এটিই বেশি গুরুত্ব পেয়েছে। স্বাধীনতাযুদ্ধ থেকেই বাংলাদেশের রাজনীতির সঙ্গে একটি ঘনিষ্ঠ যোগ আছে প্রতিবেশী দেশ ভারতের। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও হয়তো গভীর মনোযোগ থাকবে তাদের । স্বাভাবিকভাবেই ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বেশি আগ্রহ দেখিয়েছে মাশরাফির রাজনীতি-বিষয়ক খবর প্রকাশে।

বিদেশি সংবাদমাধ্যমে মাশরাফির নির্বাচনের খবর।ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় দৈনিক ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস শিরোনাম করেছে, ‘কেন রাজনীতিতে নাম লিখেছেন, ব্যাখ্যা দিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটার মাশরাফি মুর্তজা।’ পত্রিকাটা লিখেছে, ‘মুর্তজার রাজনীতিতে আসার সিদ্ধান্তে ক্রিকেট-পাগল দেশে মিশ্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে। রাজনীতিতে আসার পর প্রথমবারের মতো ব্যাখ্যা দিয়েছেন মাশরাফি।’ টাইমস অব ইন্ডিয়া, হিন্দুস্তান টাইমস, ইন্ডিয়া টুডে আগেই জানিয়েছে, মাশরাফির মনোনয়ন ফরম কেনার খবর। ক্রিকেট ওয়েবসাইট ‘ক্রিকইনফো’ও মাশরাফির নির্বাচন খবর গুরুত্বের সঙ্গে প্রকাশ করেছে। ডেকান হেরাল্ড, ক্রিকেট কান্ট্রি—ভারতীয় ওয়েবসাইটগুলোয় প্রকাশ হয়েছে মাশরাফির নির্বাচনের খবর।

শুধু ভারতীয় সংবাদমাধ্যমই নয়, পাকিস্তানের বেশ কিছু ওয়েবসাইট কিংবা পত্রিকায় প্রকাশ হয়েছে বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়কের খবর। রাজনীতিতে আসার যে ব্যাখ্যা দিয়েছেন মাশরাফি, সেটিই প্রকাশ করেছে ‘দুনিয়া নিউজ’। আবুধাবিভিত্তিক পত্রিকা ‘দ্য ন্যাশনাল’ও প্রকাশ করেছে মাশরাফির নির্বাচনের খবর।

বার্তা সংস্থা এএফপি শিরোনাম করেছে, ‘বাংলাদেশের মাশরাফি জানিয়েছেন কেন তিনি রাজনীতিতে এসেছেন’। এএফপির বরাত দিয়ে খবর প্রকাশ করেছে বেশি কিছু আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম। দেশীয় সংবাদমাধ্যমে মাশরাফির রাজনীতির খবরের পাশাপাশি জানিয়েছে, কখন তিনি প্রচারণা শুরু করবেন। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ৯ ডিসেম্বর। এর পর থেকেই প্রার্থীরা শুরু করতে পারবেন প্রচারণা। মাশরাফি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ খেলেই যে নির্বাচনী এলাকায় যাবেন, সেটি মোটামুটি নিশ্চিত।

Add your comment

Your email address will not be published.